Breaking News

DeFi কি? DeFi বা decentralized finance সম্পর্কে জেনে নিন।

 


আজকের আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করব DeFi বা decentralized finance কি?


DeFi কি? (What is DeFi?)

Defi বা decentralized finance এখানে ডি সেন্ট্রালাইজড মানে হচ্ছে নিয়ন্ত্রনহীন অর্থাৎ যে সিস্টেম কারো দ্বারা বা কোনো ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠান দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় না। আর finance মানে হচ্ছে অর্থনীতি ও ব্যবসা বাণিজ্য ইত্যাদি। আমরা যদি এর পুরো একটি অর্থ দাড় করাই তাহলে সেটি এরকম হবে- যে অর্থনীতি বা ব্যবসা-বাণিজ্য কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় না যেটি সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রনহীন একটি সিস্টেম। যে সিস্টেম নিজেই নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করে। 


Defi এর সাথে ক্রিপ্টোকারেন্সি সম্পর্ক কি? (What is the relationship between DeFi and Cryptocurrency?)

ক্রিপ্টো কারেন্সিতে defi বা decentralized finance আসার আগে আমি গত চার-পাঁচ বছর ধরে দেখেছি আরো দুইটি প্রজেক্ট এসেছিল ক্রিপ্টোকারেন্সি তে একটি নাম হচ্ছে আই সি ও এবং দ্বিতীয়টির নাম হচ্ছে আই ই ও। 


যেখানে আই সি ও খুব বেশি জনপ্রিয় হয়ে গেছে ২০১৬ থেকে ২০১৭ সালের মাঝে। বর্তমানে আই সি ও মার্কেটে অবস্থান করছে। তবে বেশিরভাগ আই সি ও এখন স্ক্যাম। বর্তমানে ভালো আই সি ও  খুঁজে পাওয়া খুবই দুঃসাধ্য। তারপরে ২০১৮ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত চলেছিল আই ই ও। এটিও বর্তমানে আংশিক মার্কেটে অবস্থান করছে। বাইনান্স, কিউ কয়েন, বিট্রেক্স ইত্যাদি একচেঞ্জ প্ল্যাটফর্মগুলোতে এটির জনপ্রিয়তা এখনো কিছুটা আছে। এই দুটি সম্পর্কে আমি এই আর্টিকেলটিতে কিছুটা বিস্তারিত আলোচনা করেছিলাম আপনারা চাইলে পরে নিতে পারেন। 

ICO এবং IEO মানে কি? কিভাবে পার্টিসিপেট করবেন?


সুতরাং বলতে পারেন আই সি ও ছিল ক্রিপ্টোকারেন্সি প্রথম আপডেট। দ্বিতীয় আপডেট হলো আই ই ও। আর বর্তমানে সর্বশেষ আপডেট টি চলমান রয়েছে সেটি হচ্ছে defi বা decentralized finance আশা করি আপনি এই সম্পর্কে সম্যক ধারণা অর্জন করতে পেরেছেন। 


Decentralized finance এবং Centralized finance এর মধ্যে পার্থক্য কি? (What is the difference between Decentralized finance and Centralized finance?)

আমরা যদি একটু উদাহরণ দেখি যেমন বাইন্যান্স। এটা হচ্ছে একটা একচেঞ্জ প্লাটফর্ম অর্থাৎ এখানে আপনি ট্রেড করতে পারবেন। ক্রিপ্টোকারেন্সি রিলেটেড সকল কিছুই এই প্লাটফর্মে করতে পারবেন। এটি একটি নিয়ন্ত্রিত প্লাটফর্ম অর্থাৎ এটি কোন ব্যক্তি দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়ে থাকে। যেমন বাইন্যান্স এর সিইও রয়েছে এছাড়াও এটি নিয়ন্ত্রণ করার জন্য শতাধিক কর্মী নিয়মিত কাজ করে চলছে। অর্থাৎ এটি কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান তারা সর্বদাই নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে। এরকম সিস্টেমকে আমরা বলে থাকি সেন্ট্রালাইজড অর্থাৎ নিয়ন্ত্রিত। অপরদিকে আমরা যদি defi বা decentralized finance এর কথা বলি তাহলে এটি সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রনহীন একটি সিস্টেম। যেটিকে কেউ বা কোনো ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের নিয়ন্ত্রণ করেনা। যেটি নিজে থেকেই পরিচালিত হয়। এদের নিজস্ব  প্রটোকল রয়েছে যেমন ব্লকচেইন ERC20 আর এই প্রটোকল গুলার মাধ্যমেই defi পরিচালিত হয়। ডিসেন্ট্রালাইজড সিস্টেম সম্পর্কে জানতে এই আর্টিকেলটি পড়তে পারেন।

ব্লকচেইন টেকনোলজি বিশ্বকে পাল্টে দেয়া এক যুগান্তকারী আবিস্কার। এই টেকনোলজি কি আর কাজ করেই বা কিভাবে?



No comments